রবিবার, ১৪ এপ্রিল, ২০২৪, ১ বৈশাখ ১৪৩১

৩ প্রতিষ্ঠানের মুনাফায় অবনতি


Published: 2023-05-08 19:17:03 BdST, Updated: 2024-04-14 23:54:10 BdST

 


নিজস্ব প্রতিবেদক : চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে মার্চ মাস সময় পর্যন্ত ব্যবসায় পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত কাশেম ইন্ডাস্ট্রিজ, গ্রীণ ডেল্টা ইন্স্যুরেন্স এবং পেনিনসুলা চিটাগাংয়ের মুনাফায় অবনতি হয়েছে। কোম্পানি তিনটির কর্তৃপক্ষের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে সোমবার (৮ মে) দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) থেকে এ তথ্য প্রকাশ করা হয়েছে।

কাশেম ইন্ডাস্ট্রিজ : ডিএসই জানিয়েছে, চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে মার্চ মাস পর্যন্ত সময়ে কোম্পানিটি শেয়ারপ্রতি মুনাফা করেছে ১২ পয়সা। আগের বছরের একই সময়ে শেয়ারপ্রতি মুনাফা হয় ১৫ পয়সা। অর্থাৎ শেয়ারপ্রতি মুনাফা ৩ পয়সা কমেছে। চলতি বছরের তিন মাসের ব্যবসায় মুনাফা কমায় চলমান হিসাবে বছরের প্রথম নয় মাসের (২০২২ সালের জুলাই থেকে চলতি বছরের মার্চ পর্যন্ত) হিসাবেও কোম্পানিটির মুনাফায় নেতিবাচক প্রভাব পড়েছে। ২০২২ সালের জুলাই থেকে চলতি বছরের মার্চ পর্যন্ত সময়ে কোম্পানিটি শেয়ারপ্রতি লোকসান করেছে ৭ পয়সা, যা আগের হিসাব বছরের একই সময়ে শেয়ার প্রতি ৩৩ পয়সা মুনাফা হয়। মুনাফার পাশাপাশি কোম্পানিটির সম্পদ মূল্যও কমেছে। চলতি বছরের মার্চ শেষে শেয়ারপ্রতি সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ২৭ টাকা ৩৮ পয়সা, যা ২০২২ সালের জুন শেষে ছিল ২৭ টাকা ৬৪ পয়সা। অপারেটিং ক্যাশ ফ্লো’র তথ্য অনুযায়ী, ২০২২ সালের জুলাই থেকে চলতি বছরের মার্চ পর্যন্ত সময়ে শেয়ারপ্রতি অপারেটিং ক্যাশ ফ্লো দাঁড়িয়েছে ৫১ পয়সা। আগের হিসাব বছরের একই সময়ে শেয়ারপ্রতি অপারেটিং ক্যাশ ফ্লো ছিল ৯৭ পয়সা।

গ্রীণ ডেল্টা ইন্স্যুরেন্স : চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে মার্চ পর্যন্ত সময়ে কোম্পানিটি শেয়ারপ্রতি মুনাফা করেছে ৭৪ পয়সা। আগের বছরের একই সময়ে শেয়ারপ্রতি মুনাফা হয় ১ টাকা ৭৮ পয়সা। অর্থাৎ শেয়ারপ্রতি মুনাফা ১ টাকা ৪ পয়সা কমেছে। চলতি বছরের তিন মাসের ব্যবসায় মুনাফা কমায় চলমান হিসাব বছরের প্রথম ৯ মাসের (২০২২ সালের জুলাই থেকে চলতি বছরের মার্চ পর্যন্ত) হিসাবেও কোম্পানিটির মুনাফা কমেছে। মুনাফা কমলেও কোম্পানিটির সম্পদ মূল্য বেড়েছে। চলতি বছরের মার্চ শেষে শেয়ারপ্রতি সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ৬৯ টাকা ৯৪ পয়সা, যা ২০২২ সালের ডিসেম্বর শেষে ছিল ৬৮ টাকা ৯৬ পয়সা। অপারেটিং ক্যাশ ফ্লো’র তথ্য অনুযায়ী, চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে মার্চ পর্যন্ত সময়ে শেয়ারপ্রতি অপারেটিং ক্যাশ ফ্লো দাঁড়িয়েছে ২ পয়সা। আগের হিসাবে বছরের একই সময়ে শেয়ারপ্রতি অপারেটিং ক্যাশ ফ্লো ছিল ৬৭ পয়সা।

পেনিনসুলা চিটাগাং : চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে মার্চ পর্যন্ত সময়ে কোম্পানিটি শেয়ারপ্রতি মুনাফা করেছে ৫ পয়সা। আগের বছরের একই সময়ে শেয়ারপ্রতি মুনাফা হয় ৮ পয়সা। অর্থাৎ শেয়ারপ্রতি মুনাফা ৩ পয়সা কমেছে। চলতি বছরের তিন মাসের ব্যবসায় মুনাফা কমায় চলমান হিসাব বছরের প্রথম ৯ মাসের (২০২২ সালের জুলাই থেকে চলতি বছরের মার্চ পর্যন্ত) হিসাবেও কোম্পানিটির মুনাফায় নেতিবাচক প্রভাব পড়েছে। ২০২২ সালের জুলাই থেকে চলতি বছরের মার্চ পর্যন্ত সময়ে কোম্পানিটি শেয়ারপ্রতি লোকসান করেছে ২০ পয়সা, যা আগের হিসাব বছরের একই সময়ে শেয়ারপ্রতি ৭২ পয়সা মুনাফা হয়। মুনাফার পাশাপাশি কোম্পানিটির সম্পদ মূল্যও কমেছে। চলতি বছরের মার্চ শেষে শেয়ারপ্রতি সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ২৯ টাকা ২ পয়সা, যা ২০২২ সালের জুন শেষে ছিল ২৯ টাকা ৪৭ পয়সা। অপারেটিং ক্যাশ ফ্লো’র তথ্য অনুযায়ী, ২০২২ সালের জুলাই থেকে চলতি বছরের মার্চ পর্যন্ত সময়ে শেয়ারপ্রতি অপারেটিং ক্যাশ ফ্লো দাঁড়িয়েছে ঋণাত্মক ২২ পয়সা। আগের হিসাব বছরের একই সময়ে শেয়ারপ্রতি অপারেটিং ক্যাশ ফ্লো ছিল ১৯ পয়সা।

 

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।