সোমবার, ৫ ডিসেম্বার, ২০২২, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৯

তিন দেশ থেকে এক লাখ ৮০ হাজার টন সার কিনবে সরকার


Published: 2022-11-16 15:41:37 BdST, Updated: 2022-12-05 03:59:34 BdST


নিজস্ব প্রতিবেদক : সংযুক্ত আরব আমিরাত, সৌদি আরব ও কানাডা থেকে এক লাখ ৮০ হাজার মেট্রিক টন সার ক্রয়ের প্রস্তাব অনুমোদন দিয়েছে সরকার। এতে মোট খরচ হবে এক হাজার ২৯৩ কোটি ১৭ লাখ ৩৪ হাজার ৮০৭ টাকা। এরমধ্যে ৫৬৭ কোটি টাকার ৯০ হাজার টন ইউরিয়া সার রয়েছে। একইসঙ্গে ২১৫ কোটি ১৪ লাখ টাকায় ৩০ হাজার টন ফসফরিক এসিড ক্রয়েরও অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। বুধবার (১৬ নভেম্বর) দুপুরে ভার্চুয়ালি অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সরকারি ক্রয়সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কসিটির বৈঠকে এ সংক্রান্ত পৃথক ছয়টি প্রস্তাবের অনুমোদন দেওয়া হয়। বৈঠক শেষে অনুমোদিত প্রস্তাবগুলোর বিস্তারিত সাংবাদিকদের সামনে তুলে ধরেন মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব সাইদ মাহবুব খান। তিনি বলেন, আজকে অর্থনৈতিক বিষয়সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির ২৬তম এবং সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির ৩৪তম সভা হয়েছে। ক্রয় কমিটিতে আটটি প্রস্তাবের অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। প্রস্তাবনাগুলোর মধ্যে শিল্প মন্ত্রণালয়ের চারটি, কৃষি মন্ত্রণালয়ের দুটি, বিদ্যুৎ বিভাগের একটি এবং সেতু বিভাগের একটি প্রস্তাবনা ছিল। এতে মোট খরচ হবে এক হাজার ৭২২ কোটি ৬৩ লাখ ১২ হাজার ৯১৫ টাকা।

অতিরিক্ত সচিব জানান, শিল্প মন্ত্রণালয়ের অধীন বাংলাদেশ কেমিক্যাল ইন্ডাস্ট্রিজ করপোরেশন (বিসিআইসি) কর্তৃক সংযুক্ত আরব আমিরাতের ফার্টিগ্লোব ডিস্ট্রিবিউশন লিমিটেড থেকে পঞ্চম লটে ৩০ হাজার মেট্রিক টন বাল্ক গ্র্যানুলার ইউরিয়া সার ১৮৯ কোটি ২৮ লাখ ৪৭ হাজার ৩৬৯ টাকায় আমদানির অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। বিসিআইসি কর্তৃক সৌদি আরবের এসএবিআইসি এগ্রি-নিউট্রিয়েন্টস কোম্পানি থেকে ১৩তম লটে ৩০ হাজার মেট্রিক টন বাল্ক গ্র্যানুলার ইউরিয়া সার ১৮৯ কোটি ২৮ লাখ ৪৭ হাজার ৩৬৯ টাকায় আমদানির অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। সৌদি আরব থেকে অন্য একটি লটে এসএবিআইসি এগ্রি-নিউট্রিয়েন্টস কোম্পানি থেকে ১৪তম লটে ৩০ হাজার মেট্রিক টন বাল্ক গ্র্যানুলার ইউরিয়া সার ১৮৯ কোটি ২৮ লাখ ৪৭ হাজার ৩৬৯ টাকায় আমদানির অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। অতিরিক্ত সচিব জানান, আজকের ক্রয়সংক্রান্ত কমিটির বৈঠকে কৃষি মন্ত্রণালয়ের এমওপি ও ডিএপি সার ক্রয়ে দুটি প্রস্তাব উত্থাপন করা হলে দুটি প্রস্তাবেরই অনুমোদন দেওয়া হয়। এর মধ্যে কৃষি মন্ত্রণালয়ের অধীন বাংলাদেশ কেমিক্যাল ইন্ডাস্ট্রিজ করপোরেশন (বিসিআইসি) কর্তৃক কানাডা থেকে ৫০ হাজার মেট্রিক টন মিউরেট অব পটাশিয়াম (এমওপি) সার ক্রয়ের অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। প্রতি মেট্রিক টন সারে দাম পড়বে ৭৮৮ মার্কিন ডলার, যার আগের দর ছিল ৮২১ মার্কিন ডলার। এতে মোট ব্যয় হবে ৪১৬ কোটি ৫৩ লাখ ৬৮ হাজার টাকা।

কৃষি মন্ত্রণালয়ের অধীন বাংলাদেশ কেমিক্যাল ইন্ডাস্ট্রিজ করপোরেশন (বিসিআইসি) কর্তৃক সৌদি আরব থেকে ৪০ হাজার মেট্রিক টন ডাই-অ্যামোনিয়াম ফসফেট (ডিএপি) সার ক্রয়ের অনুমোদন দিয়েছে। প্রতি মেট্রিক টন সারের দাম পড়বে ৭২৫ দশমিক ২৫ মার্কিন ডলার, যা আগে ছিল ৮২৬ দশমিক ৫০ মার্কিন ডলার। এতে মোট ব্যয় হবে ৩০৮ কোটি ৭৮ লাখ ২৪ হাজার ৪০০ টাকা। শিল্প মন্ত্রণালয়ের অধীন বাংলাদেশ কেমিক্যাল ইন্ডাস্ট্রিজ করপোরেশন (বিসিআইসি) কর্তৃক ডিএপি ফার্টিলাইজার কোম্পানি লিমিটেড (ডিএপিএফসিএল)-এর জন্য ৩০ হাজার মেট্রিক টন ফসফরিক এসিড মেসার্স সান ইন্টারন্যাশনাল এফজেডই, ইউএই (স্থানীয় এজেন্ট- মেসার্স আর কে এন্টারপ্রাইজ, ঢাকা) থেকে ৩০ হাজার মেট্রিক টন ফসফরিক এসিড মোট ২১৫ কোটি ১৪ লাখ ৭০ হাজার ৮৮০ টাকায় ক্রয়ের অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।