বুধবার, ২২ মে, ২০২৪, ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

সরকারের ঋণ থেকে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের আয় ৭ হাজার কোটি টাকা


Published: 2023-08-23 18:13:50 BdST, Updated: 2024-05-22 11:06:06 BdST


নিজস্ব প্রতিবেদক : গত ২০২২-২৩ অর্থবছরে সরকারকে দেওয়া ঋণ থেকে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের আয় হয়েছে সাত হাজার কোটি টাকা। প্রতিষ্ঠানটির পরিচালন ব্যয় বাদে সরকারের ঋণ থেকে এই পরিমাণ নিট মুনাফা অর্জন করা হয়েছে। গতকাল বাংলাদেশ ব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদের বৈঠকে গত অর্থবছরের আর্থিক হিসাব বিবরণী অনুষ্ঠানে এসব তথ্য উঠে আসে। কেন্দ্রীয় ব্যাংকের সভাকক্ষে গভর্নর আব্দুর রউফ তালুকদারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বৈঠকে অন্য পরিচালকরা উপস্থিত ছিলেন। জানা যায়, সরকারের ঋণের মুনাফা ছাড়াও রেপো, স্পেশাল রেপোর বিপরীতে বিভিন্ন ব্যাংককে দেওয়া স্বল্পমেয়াদি ধারের বিপরীতে দুই হাজার কোটি টাকা আয় করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক। এছাড়া বৈদেশিক মুদ্রা বিক্রিসহ অন্যান্য উপায়ে ছয় হাজার কোটি টাকা মুনাফা এসেছে। সবমিলিয়ে ব্যাংক খাতের নিয়ন্ত্রক সংস্থার গত অর্থবছরের নিট আয় প্রায় ১৫ হাজার কোটি টাকা। যা গত অর্থবছরের প্রায় দ্বিগুণ। আর্থিক হিসাব বিবরণী অনুসারে, সব ধরনের খরচের পর নিট আয় থেকে ১০ হাজার ৬৫২ কোটি টাকা দেওয়া হয়েছে সরকারি কোষাগারে। বাকি ৯৬ কোটি টাকা রাখা হয়েছে কর্মকর্তাদের ইনসেনটিভ বোনাস দেওয়ার জন্য।

বাংলাদেশ ব্যাংকের তথ্য অনুযায়ী, গত অর্থবছর ব্যাংক ব্যবস্থা থেকে সরকার রেকর্ড এক লাখ ২২ হাজার ৯৮০ কোটি টাকা ঋণ নেয়। এই ঋণের মধ্যে কেন্দ্রীয় ব্যাংক সরাসরি সরবরাহ করে ৯৭ হাজার ৬৮৪ কোটি টাকা। বাংলাদেশ ব্যাংক সরাসরি ঋণ সরবরাহ করলে মূল্যস্ফীতি বাড়ে। এমনিতেই এখন ১০ শতাংশের কাছাকাছি মূল্যস্ফীতি। এর মধ্যে এভাবে কেন্দ্রীয় ব্যাংক থেকে ঋণ সরবরাহ নিয়ে ব্যাপক সমালোচনা করেন অর্থনীতিবিদরা। অবশ্য চলতি অর্থবছরে কেন্দ্রীয় ব্যাংক সরকারকে ঋণ সরবরাহ কমিয়েছে। বৈদেশিক মুদ্রার চরম সঙ্কটের কারণে বাংলাদেশ ব্যাংক গত অর্থবছর বিভিন্ন ব্যাংকের কাছে এক হাজার ৩৫৮ কোটি ডলার বিক্রি করে। আগের অর্থবছর বিক্রি করে ৭৬২ কোটি ডলার। আবার এ সময়ে টাকার বিপরীতে ডলারের দর অনেক বেড়েছে। সব মিলিয়ে বৈদেশিক মুদ্রা খাত থেকে আয় হয়েছে ছয় হাজার কোটি টাকা। অবশ্য দেশের বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ ব্যাপক কমে এখন ২৩ দশমিক ১৪ বিলিয়ন ডলারে নেমেছে। বাংলাদেশ ব্যাংকের অনুযায়ী, ২০২১-২২ অর্থবছর বাংলাদেশ ব্যাংক নিট মুনাফা করে ৫ হাজার ৮৯৯ কোটি টাকা। এর মানে এক বছরে মুনাফা বেড়েছে ৪ হাজার ৮৪৯ কোটি টাকা বা ৮২ দশমিক ২০ শতাংশ। ওই অর্থবছরের মুনাফার মধ্যে বৈদেশিক খাত থেকে আসে ২ হাজার ৮৮৯ কোটি টাকা। আর সরকারকে ঋণ, রোপো ও স্পেশাল রেপোর মাধ্যমে ব্যাংকগুলোকে স্বল্প মেয়াদি ধারের বিপরীতে মুনাফা হয় ৩ হাজার ১০ কোটি টাকা। এর আগে ২০২০-২১ অর্থবছরে বাংলাদেশ ব্যাংক আয় করে ৬ হাজার ২৯ কোটি টাকা।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।