করোনা ভাইরাস সংক্রমণরোধে হ্যান্ড স্যানিটাইজার উৎপাদন করেছে চিনি ও খাদ্য শিল্প কর্পোরেশন


Published: 2020-03-22 15:03:38 BdST, Updated: 2021-06-24 21:50:34 BdST



বিজনেস ওয়াচ প্রতিবেদক:
করোনা ভাইরাস সংক্রমণরোধে হ্যান্ড স্যানিটাইজার উৎপাদন করেছে চিনি ও খাদ্য শিল্প কর্পোরেশনের আওতাধীন রাষ্ট্রায়ত্ত কেরু এন্ড কোম্পানি (বাংলাদেশ) লিমিটেড। ‘কেরুজ হ্যান্ড স্যানিটাইজার’ নামে এই জীবাণুনাশক সোমবার (২৩ মার্চ) থেকে পরীক্ষামূলকভাবে দেশের বিভিন্ন জায়গায় ১৬টি বিপণন কেন্দ্র, শিল্প মন্ত্রণালয় এবং চিনি ও খাদ্য শিল্প কর্পোরেশনের সামনে এ স্যানিটাইজার পাওয়া যাবে। এছাড়া, চাহিদার ভিত্তিতে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানকে এটি সরবরাহ করা হবে। কয়েক দিন পর থেকে এটি পুরোদমে বাজারে পাওয়া যাবে। ল্যাবরেটরি পরীক্ষায় দেখা গেছে, কেরু উৎপাদিত হ্যান্ড স্যানিটাইজার ৯৯ দশমিক ৯৯ শতাংশ জীবাণু ধ্বংস করতে সক্ষম । প্রতি ১০০ মিলিলিটার বোতলের স্যানিটাইজারের সর্বোচ্চ খুচরা মূল্য হবে ৬০ টাকা। উল্লেখ্য, কেরু এন্ড কোম্পানি(বাংলাদেশ) লিমিটেড চুয়াডাঙ্গা জেলার দর্শনায় অবস্থিত বাংলাদেশ চিনি ও খাদ্য শিল্প কর্পোরেশনের অধিভুক্ত একটি প্রতিষ্ঠান। ১৯৩৮ সালে স্থাপিত এ কারখানাটি উন্নতমানের স্পিরিট উৎপাদন করে আসছে। ইতোমধ্যে চুয়াডাঙ্গার স্থানীয় প্রশাসন ও কেরু কোম্পানি (বাংলাদেশ) লিমিটেডের শ্রমিক-কর্মচারীদের মধ্যে এটি বিতরণ করা হয়েছে।

করোনা ভাইরাস সংক্রমণরোধে কর্মক্ষেত্রের পরিচ্ছন্নতা নিশ্চিত করার উদ্যোগের অংশ হিসেবে নিয়মিত বিরতিতে হাত ধোয়া, হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহার, আইইডিসিআর কর্তৃক নির্দেশিত পন্থায় হাঁচি-কাশি দেয়া, করমর্দন বা কোলাকুলি থেকে বিরত থাকা এবং জনসমাগম পরিহার করতে মন্ত্রণালয় ও এর আওতাধীন দপ্তর/সংস্থা, মাঠ পর্যায়ের আঞ্চলিক অফিস, জেলা অফিস, শিল্পনগরি কার্যালয়, শিল্প-কারখানা ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোর কর্মকর্তা-কর্মচারীদের নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। পাশাপাশি সকল কার্যালয়, শিল্প-কারখানা এবং শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে নিজ নিজ প্রাঙ্গণ পরিস্কার পরিচ্ছন্ন রাখতে বলা হয়েছে। সংক্রমণ প্রতিরোধে সাময়িকভাবে বায়োমেট্রিক হাজিরা পদ্ধতি স্থগিত করা হয়েছে। এর অংশ হিসেবে বিসিক শিল্পনগরিগুলোতে সচেতনতামূলক লিফলেট বিতরণ করা হয়েছে। এছাড়া, শিল্পনগরিগুলোর মূল ফটক এবং দর্শনযোগ্য স্থানে করোনার ঝুঁকি মোকাবেলায় স্বাস্থ্যবিধি বিষয়ক সচেতনতামূলক ব্যানার সাঁটানো হয়েছে।



এছাড়াও করোনার প্রার্দুভাবে উদ্ভুত যে কোনো পরিস্থিতি মোকাবেলায় তাৎক্ষণিকভাবে ব্যবস্থা নিতে শিল্প মন্ত্রণালয় এবং এর আওতাধীন দপ্তর/সংস্থাগুলোর কন্ট্রোল রুম স্থাপন করা হয়েছে। মতিঝিলে অবস্থিত শিল্প মন্ত্রণালয়ে চতুর্থ তলায় ৪১৯ নং কক্ষে কন্ট্রোল রুম খোলা হয়েছে। মন্ত্রণালয়ের উপসচিব (সাধারণ সেবা) প্রতুল কুমার শাহাকে মন্ত্রণালয়ের ফোকাল পয়েন্ট মনোনীত করা হয়েছে। যে কোনো জরুরি প্রয়োজনে মন্ত্রণালয় সংশ্লিষ্টদের কন্ট্রোল রুমের হট লাইন নম্বর +৮৮০২৯৫৫৮৪১৩, মোবাইল নম্বর ০১৭২০-০৯৮৩৬১, ই-মেইল: ঢ়ৎধঃঁষ.ংধযধ১@মসধরষ.পড়স-এ যোগাযোগ করতে বলা হয়েছে। মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন সকল দপ্তর ও শাখা কার্যালয় এবং সংস্থা/কর্পোরেশনের প্রধান কার্যালয়সহ সকল কারখানা, আওতাধীন শিল্পনগরি, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও চিকিৎসা কেন্দ্রের মেডিক্যাল অফিসারগণ তাঁর কার্যালয়ে কন্ট্রোল রুম চালু করে ফোকাল পয়েন্ট কর্মকর্তা নির্ধারণ করার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। এসব কন্ট্রোল রুমের ফোকাল পয়েন্টের তথ্য সংশ্লিষ্ট এলাকার সকল শিল্প মালিক এবং শ্রমিক সংগঠনসহ সবাইকে অবহিত করতে বলা হয়েছে।

 

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।