বুড়িগঙ্গাকে ইতালির ভেনিস কিংবা সিঙ্গাপুরের কালং নদীর আদলে গড়ার পরিকল্পনা নিয়েছে ডিএসসিসি


Published: 2017-03-24 23:22:26 BdST, Updated: 2021-09-28 06:51:58 BdST

বিওয়াচ ডেক্স: বুড়িগঙ্গার পানির মান ঠিক রাখতে এটিকে ইতালির ভেনিস ও সিঙ্গাপুরের কালং নদীর আদলে গড়ার পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন (ডিএসসিসি)। প্রকল্পের ব্যয় ধরা হয়েছে ২ হাজার কোটি টাকা। শিগগিরই এ প্রকল্পের কাজ শুরু হবে।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, রাজধানীর কোটি মানুষের বর্জ্য পড়ে নষ্ট হয়ে ব্যবহার অনুপযোগী হয়ে পড়েছে বুড়িগঙ্গা নদীর পানি। অন্যদিকে বুড়িগঙ্গায় কল-কারখানার রাসায়নিক বর্জ্য  পড়ছে। ঢাকার প্রাণ শুধু বুড়িগঙ্গা নদীতেই প্রায় এক লাখ ঘনমিটার অপরিশোধিত তরল বর্জ্য ফেলা হচ্ছে। ফলে নদীটি আজ মৃত্যুর পথে। এ অবস্থা থেকে বুড়িগঙ্গাকে রক্ষা করতে ‘ঢাকা ইনটিগ্রেটেড আরবান ডেভেলপমেন্ট অ্যান্ড স্মার্ট সিটি ম্যানেজমেন্ট’ নামে একটি পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে।
পরিকল্পনা মধ্যে রযেছে বুড়িগঙ্গার পানির মান ঠিক রাখা। পানির মান ঠিক রাখতে কয়েকটি পানি শোধনাগার (রিসাইকেল পন্ড) থাকবে। রাজধানীর ১৮টি সুয়ারেজ পাইপের পানি ফিল্টারিং করতে ১৮টি পরিশোধন প্ল্যান্ট বসানো হবে। ১৮টি সুয়ারেজ লাইনের পানি বুড়িগঙ্গায় পড়ার আগে তা আলাদা চার থেকে পাঁচটি রিসাইকেল পন্ডে রেখে পরিশোধনের মাধ্যমে বিশুদ্ধ করে বুড়িগঙ্গা নদীতে যাবে। এ প্রকল্পের বাস্তবায়নের মেয়াদকাল নির্ধারণ করা হয়েছে ২০ বছর।
এ প্রকল্পের মাধ্যমে বুড়িগঙ্গার দুই পারে সৌন্দর্যবর্ধনও করা হবে। এ ছাড়া অবকাশ যাপনের জন্য নদীর তীরে থাকবে বিলাসবহুল রিসোর্ট, হাঁটার রাস্তা, পার্কসহ ভাসমান বিনোদন কেন্দ্র ও রেস্তোরাঁ। শিগগিরই এ প্রকল্পের কাজ শুরু হবে। দেশি-বিদেশি ফুল ও বৃক্ষ দিয়ে সাজানো হবে পাড়।

ডিএসসিসির উদ্যোগে বিশ্বব্যাংক ও বাংলাদেশ মিউনিফিসিয়াল ডেভেলপমেন্ট ফান্ডের (বিএমডিএফ) আর্থিক সহায়তায় নদীর মূল অবস্থান ঠিক রেখে ইতালির ভেনিস ও সিঙ্গাপুরের কালং নদীর আদলে করা হবে। নদীর স্বাভাবিক গতিপ্রবাহ ফিরিয়ে আনা হবে। এ পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করতে ২০০০ কোটি টাকা ব্যয় হবে। ‍বিশ্বব্যাংক ১ হাজার ৬০০ কোটি টাকা দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে। বাকি টাকা ডিএসসিসির তহবিল থেকে ব্যয় করা হবে।

এ ব্যাপারে ডিএসসিসি মেয়র সাঈদ খোকন বলেন, ‘ঢাকার প্রাণ বুড়িগঙ্গা নদী এখন মৃতপ্রায়। বুড়িগঙ্গার প্রাণ আনতে সিঙ্গাপুর নদীর আদলে আধুনিক ও দৃষ্টিনন্দন করতে একটি প্রকল্প নেওয়া হয়েছে।’

এ ব্যাপারে ডিএসসিসির এক কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, ‘সিঙ্গাপুর নদীতে প্রতিদিন হাজার হাজার পর্যটক ভিড় জমায়। সেই নদীর আদলে বুড়িগঙ্গাকে সাজাতে মেয়র সাঈদ খোকনের সঙ্গে বিশ্বব্যাংকের প্রতিনিধিরা বৈঠক করেছেন। নকশা প্রণয়নের কাজ সমাপ্ত হয়েছে। শিগগিরই এ কাজ শুরু হবে।’

তিনি আরো বলেন, ‘বর্ষাকালে যখন বুড়িগঙ্গা পানিতে ভরপুর থাকে, তখন দূর থেকে ঢাকাকে দেখা যায় সিঙ্গাপুর ও ভেনিসের নদীর মতো। সে কথা মাথায় রেখে বুড়িগঙ্গাকে সাজানো হবে।’

ডিএসসিসির প্রধান নগর পরিকল্পনাবিদ মো. সিরাজুল ইসলাম বলেন, ‘বুড়িগঙ্গার প্রাণ ফিরিয়ে আনতে বুড়িগঙ্গাকে দূষণমুক্ত করতে একটি পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন (ডিএসসিসি)। এ প্রকল্পের পানি সারা বছরই ব্যবহারসহ বুড়িগঙ্গা নদীর স্বাভাবিক গতিপ্রবাহ ফিরিয়ে আনা হবে। সুত্র:রািইজিংবিডি

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।