শুক্রবার, ১৪ জুন, ২০২৪, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

২ হাজার কোটি টাকা ভ্যাট আদায়ে গ্রামীণফোনকে চিঠি দিয়েছে এনবিআর


Published: 2017-11-16 11:59:57 BdST, Updated: 2024-06-14 22:29:04 BdST

বিজনেস ওয়াচ প্রতিবেদক: দেশের সবচেয়ে বড় মোবাইল অপারেটর গ্রামীণফোন মূল্য সংযোজন কর (মূসক) বাবদ দুই হাজার ১৫ কোটি টাকা সরকারকে দিচ্ছে না। ফলে সরকারের এ টাকা আদায়ে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন( বিএসইসি) ও কেন্দ্রীয় ব্যাংকের কাছে চিঠি দেয়ার মাধ্যমে সহায়তা চেয়েছে ।

এনবিআরের বৃহৎ করদাতা ইউনিটের মূসক কমিশনার মতিউর রহমান এ বিষয়ে বলেন, গ্রামীণফোন পাওনা নিযে আপত্তি জানিয়ে ট্রাইবুনালে অভিযোগ দায়ের করে। ট্রাইবুনালে জিপি হেরে গেছে। ফলে এখন গ্রামীণফোনকে মূসক বাবদ এনবিআরের ২ হাজার ১৫ কোটি ২৭ লাখ টাকা পাওনা পরিশোধ করতে হবে। কিন্তু কোম্পানিটি তা সঠিক সময়ে করছে না। এ কারণে সংশ্লিষ্ট সংস্থাকে বিষয়টি জানানো হয়েছে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের চিঠি দেয়ার ব্যাপারে তিনি বলেন, গ্রামীণফোন রাজস্বের টাকা রেমিটেন্স হিসেবে বিদেশে যেন না পাঠাতে পারে, সেজন্য বাংলাদেশ ব্যাংকের কাছে চিঠি দিয়েছি। আর শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত কোম্পানি হওয়ায় মূসক পরিশোধ করতে হলে গ্রামীণফোনকে আর্থিক প্রতিবেদন প্রভিশন রাখতে হবে। তা না হলে তারা লভ্যাংশ হিসেবে টাকা বিনিয়োগকারীদের দিয়ে দিতে পারে। এ কারণে আমরা বিএসইসির সাহায্য চেয়েছি।

উল্লেখ্য গ্রামীণফোন ২০০৯ সালে শেয়ারবাজরে তালিকাভুক্ত হয়। কোম্পানির ১০০ শতাংশ শেয়ারের মধ্যে মাত্র ২.০৬ শতাংশ সাধারণ বিনিয়োগকারী , ৩.৫১ শতাংশ বিদেশী বিনিয়োগকারী, ৪.৪৩ শতাংশ প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারী ও ৯০ শতাংশ শেয়ার স্পন্সর পরিচালককদের হাতে রয়েছে।

বুধবার কোম্পানির প্রতিটি শেয়ার ৪৮৬ টাক ১০ পয়সা দরে লেনদেন হয়েছে। কোম্পানিটি ২০১৬ সালে ১৭৫ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দেয়।

সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।